মেঘনায় কাঁঠালিয়া নদীতে ট্রলার ডুবে একই পরিবারের ৩ জন নিহত,নিখোঁজ:১

 

কুমিল্লা মেঘনা উপজেলা প্রতিনিধি।।

কুমিল্লা মেঘনা উপজেলার পুরান বাটেরা সংলগ্ন কাঁঠালিয়া নদীতে একই পরিবারের ১৪ জন যাত্রী নিয়ে ইঞ্জিল চালিত ট্রলার আকস্মিক ডুবে যায়। ট্রলার ডুবে যাওয়ার খবর পেয়ে পুরান বাটেরা গ্রামের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে ট্রলার থেকে নারী পুরুষ ও শিশুসহ ১৩ জনকে উদ্ধার করে দাউদকান্দি এলহাম হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ৩ জনকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতরা হলো কুমিল্লা জেলার তিতাস উপজেলার রায়পুর গ্রামের আব্দুল মতিন মিয়ার স্ত্রী জুলেখা আক্তার (৫৫) মেয়ের ঘরের নাতিন আয়েশা আক্তার (১২), মরিয়ম আক্তার (৭) নিখোঁজ রয়েছে তামান্না আক্তার (৫)।

জানাযায় নিখোঁজ ও নিহতরা সবাই ঢাকার ডেমরা থানার সুকুশি গ্রামে বসবাস করে। মামার বাড়ি তিতাস উপজেলার মোহনপুর গ্রামে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনার শিকার হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী জানান, যাত্রীবাহী একটি ট্রলার দাউদকান্দি থেকে তিতাস উপজেলার মোহনপুর গ্রামের উদ্দেশ্যে দুপুর সাড়ে ১২ টায় মেঘনা উপজেলার পুরান বাটেরা সংলগ্ন কাঁঠালিয়া নদীতে পৌঁছানোর পর আকস্মিক ট্রলারটি ডুবে গিয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নৌ পুলিশ পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

আরো পড়ুনঃ