ভোট কেন্দ্রে  প্রভাব বিস্তার করতে চাইলে কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়া হবে- কুমিল্লায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার।। 

 

স্টাফ রিপোর্টার।।

কুমিল্লা সিটি করপোরশন নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর করতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। কুমিল্লার নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে কমিশন একটি সুন্দর সূচনা করতে চায়।

রোববার (২৯ মে) সকাল ১১টায় কুমিল্লা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে কুসিক নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী সকল প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, পেশি শক্তির ব্যবহার করে নির্বাচনে জয়ী হওয়ার সুযোগ নেই। এরকম কিছু প্রমাণ পেলে প্রার্থিতা বাতিল করা হবে।

তিনি আরও বলেন, সহিংসতা হলে নির্বাচন বাতিল করার মতো সিদ্ধান্ত নিবে কমিশন। ভোট কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার করতে চাইলে কেন্দ্র বন্ধ করে দেওয়া হবে।

কাজী হাবিবুল আউয়াল আরও বলেন, নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হলে এর দায় জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকেই নিতে হবে।

তিনি বলেন, কুমিল্লা সিটি করপোরশনে আনন্দময় একটি পরিবেশ নির্বাচন সম্পন্ন করতে সকলের সহযোগিতা চাই। আচরণ বিধিমালা সকলে মেনে চলতে হবে।

প্রয়োজনে কমিশন কঠোর অবস্থানে যাবে। প্রতিটি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করা হবে। এমনকি নির্বাচনের পর চলমান থাকবে।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর, নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান, রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নাবী চৌধুরী, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দুলাল তালুকদার ও কুমিল্লা পুলিশ সুপার মো. ফারুক আহাম্মদ।
সভায় মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা তাদের বিভিন্ন অভিযোগ ও আবেদন তুলে ধরেন।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ৫ মেয়র প্রার্থীসহ ১৪৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। নগরীর ২৭টি সাধারণ ও ৯টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে মোট ভোটার ২ লাখ ২৭ হাজার ৭৯২ জন। আগামী ১৫ জুন ১০৫ টি কেন্দ্রে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

আরো পড়ুনঃ